Types of Plants » বাগান করার ক্ষেত্রে কিছু মৌলিক বিবেচনা

বাগান করার ক্ষেত্রে কিছু মৌলিক বিবেচনা

Updated December 11, 2020

অর্গানিক বাগান সাধারণত নিজে থেকে একটি স্বাস্থ্যবান এবং ভারসাম্যপূর্ণ বাস্তুসংস্থান বজায় রাখার চেষ্টা করে। কারণ উদ্ভিদ প্রজাতি মিলিয়ন বছর ধরে বেড়ে ওঠার নির্দিষ্ট পরিবেশে খাপ খাইয়ে নেয়ার চেষ্টা করে আসছে।  যখন তাদের বেড়ে ওঠার জন্য উপযুক্ত পরিবেশ পাওয়া যায় তখন তারা বেশ সহজ ভাবে বেড়ে ওঠে। যে গাছগুলো বাগান করার জায়গার আলো, ছায়া, পরিবেশ, মাটির ধরণ এবং মাটির আর্দ্রতার সাথে খাপ খাইয়ে নিতে পারবে সেগুলো যদি বাগানে লাগানো হয় তবে আপনি একটি চমৎকার সতেজ,  স্বাস্থ্য সমৃদ্ধ কীটপতঙ্গ বাগানের পরিবেশ তৈরি করতে পারবেন। 

বিবেচনা ও বুদ্ধিমত্তার সাথে গাছ লাগানোর প্রথম পদক্ষেপ হচ্ছে আপনার আশেপাশের পরিবেশের আবহাওয়া সম্পর্কে আপনার জানতে হবে এবং একই সাথে আপনার আশপাশের বিশেষ দিকগুলো সম্পর্কে জ্ঞান রাখতে হবে। এরপরই আপনি সফলভাবে গাছ লাগানোর জায়গায় লাগানোর জন্য গাছ ঠিক করতে পারবেন।

 সঠিক বিবেচনার মাধ্যমে আপনার বাগানে গাছ লাগানোর দ্বিতীয় পদক্ষেপ হচ্ছে আপনার বাগানে যেন চাষযোগ্য স্থায়ী উদ্ভিদ প্রজাতির এবং উপকারী প্রাণীদের সমাজ গড়ে ওঠে সেটি নিশ্চিত করা। প্রকৃতিতে উদ্ভিদ এবং প্রাণী একটি বাস্তুসংস্থানে সমাজের মতন করে অবস্থান করে যেখানে উভয় পক্ষই নিজেদের কার্য সম্পাদন করে এবং এতে করে এক পক্ষের কাজ অপর পক্ষের জীবনকে প্রভাবিত করে। একটি ভারসাম্যপূর্ণ বাস্তুসংস্থানে প্রতিটি গাছ এবং প্রাণী প্রজাতির যথেষ্ট পরিমাণ খাদ্য, পানি এবং থাকার জন্য বাসস্থান থাকা প্রয়োজন। 

একটি ভারসাম্যপূর্ণ বাস্তুসংস্থানের শিকারি প্রাণীদের জন্য যথেষ্ট পরিমান শিকার রয়েছে এবং ঠিক একই ভাবে এই শিকারদের জন্য যথেষ্ট পরিমাণ উদ্ভিদ বা গাছপালা রয়েছে।  যখন একটি বাস্তুসংস্থানের কোন একটি অংশ মারা যায় অথবা বিলুপ্ত হয়ে যায় তখন সেই অংশটি ওপর নির্ভরশীল যেসব গাছপালা কিংবা প্রাণী রয়েছে পরিবেশে তাদের কার্যক্রম ভারসাম্যহীন হয়ে পড়ে। উদাহরণস্বরূপ যদি মৌমাছি বিলুপ্ত হয়ে যায় তবে গাছগুলোর ফুলের পরাগায়ন মৌমাছির মাধ্যমে হয়ে থাকে সেগুলোর পরাগায়ন বন্ধ হয়ে যাবে এবং ফলশ্রুতিতে এই গাছগুলো তাদের বীজ উৎপন্ন করতে পারবে না। আবার যদি গুবরে পোকার মতো শিকারি বিরক্ত হয়ে যায় সে ক্ষেত্রে এরা যে স্বীকার এর উপর নির্ভর করে বেঁচে থাকে যেমন অ্যাফিড এর পরিমান ভয়াবহ রকমের বৃদ্ধি পাবে। এবং এতে করে বর্ধমান কীট এর কারণে এগুলো যে গাছের উপর নির্ভর করে বেঁচে থাকে সেগুলোর মারাত্মক ক্ষতি হতে পারে।

 অতএব আদর্শ অর্গানিক বাগান তৈরি করার ক্ষেত্রে যথাযথভাবে বিবেচনা করে সঠিক গাছ লাগানোর সিদ্ধান্ত নিতে হবে 

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.